ঈশপের গল্প: গাধা, চাষী ও তার ছেলে

গাধা, চাষী ও তার ছেলে

একদা এক দেখে এক চাষীর একটি গাধা ছিল। টাকার প্রয়োজন হওয়ায় চাষীটি গাধাটাকে বিক্রি করবার জন্যে হাটে নিয়ে যাচ্ছিলো। কিছুদূর যাবার পর দেখা গেল কতকগুলো ছেলে পথে দাঁড়িয়ে গল্প করছে। চাষীকে ও তার ছেলেকে গাধা নিয়ে হেঁটে যেতে দেখা গেল তাদের মধ্যে একজন বলে উঠল, আরে আরে দেখেছিস— ওরা কি বোকা, দেখ দেখ ওরা দুজনেই হেঁটে যাচ্ছে। অথচ ওদের মধ্যে একজন গাধার পিঠে দিব্যি চড়ে যেতে পারে।

চাষী এই কথা শুনে ছেলেকে গাধার পিঠে চড়িয়ে নিজে তাদের পেছন পেছন

হেঁটে চললো।

কিছুদূর যাবার পর চাষীটি শুনতে পেল, কয়েকজন বৃদ্ধ পথের ধারে বসে কি নিয়ে যেন তর্কাতর্কি করছে। চাষী একটু কান পেতে শুনেই বুঝতে পারলেন— বৃদ্ধের মধ্যে একজন বলছেন— দেখ, দেখ, আমি যা বলছিলাম, ঠিক তাই। এ যুগের ছেলেরা, তাদের বাপদের উপর কোনো মায়ামমতাও নেই। নইলে বাপকে হাঁটিয়ে ছেলে গাধায় চড়ে আরাম করে যায়? তাছাড়া সেই বৃদ্ধটি গাধার পিঠে বসে থাকা ছেলেটাকেও আচ্ছা করে ধমক দিল। লজ্জা করে না তোর? বাপকে হাঁটিয়ে নিজে আরাম করে গাধায় চড়ে যেতে?

ছেলেটি একথায় ভীষণ লজ্জা পেল এবং গাধার পিঠ থেকে নেমে বাপকে গাধার পিঠে চড়িয়ে দিল।

কিছুদূর যাবার পর তাদের সামনে পড়ল কয়েকজন স্ত্রীলোক, তাদের মধ্যে একজন বলল, দেখছিস বুড়োটার কি আক্কেল। নিজে আরামে গাধার পিঠে বসে ছেলেটারে হাঁটিয়ে হাঁটিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

এবার চাষী খুবই লজ্জা পেল। স্ত্রীলোকদের এই কথা শোনার পর নিজে গাধা

পিঠে উটল এবং ছেলেকে ও গাধার পিঠে চড়িয়ে নিল। এবার বাপ ও ছেলে দুজনেই গাধার পিঠে চড়ে কিছুদূর যাবার পর তাদের সামনে পড়ল একজন লম্বা লোক। লোকটি চাষী ও তার ছেলেকে ওভাবে গাধার পিঠে চড়ে

যেতে দেখে ক্রুর দৃষ্টিতে চেয়ে বললো— শোনো—চাষী বললো—এ গাধাটা কারা

চাষী—কেন, এ গাধাটা তো আমার। লোকটি তা তো মনে হচ্ছে না।

চাষী — কেন?

লোকটি বললো তোমার গাধা হলে, এই অবলা জীবটির ওপর তোমার একটু মায়া দয়া থাকতো। এমন নিরীহ জীবের ওপর তোমরা দুইজন চড়ে যাচ্ছো, এতে কই হয় না এর? যে কষ্ট তোমরা এতোক্ষণ এই অবলা নিরীহ জীবটিকে দিয়েছো তার জন্যে তোমাদের এখন প্রায়শ্চিত্ত করা উচিত। এখন একেই তোমাদের কাঁধে করে বয়ে নিয়ে যাওয়া উচিত।

লোকটার কথায় বাপ ও ছেলে দুজনেই গাধার পিঠ থেকে নেমে একটি দড়ি দিয়ে গাধার পা বেঁধে পায়ে ভিতর বাঁশ চালিয়ে দিয়ে দুজনে তাকে কাঁধে করে নিয়ে চললো।

হাটে যাবার পথে পড়ল একটা খাল। সেই খালের ওপর একটা সাঁকো ছিল। বা আর ছেলে গাধা কাঁধে করে ঐ সাঁকোর ওপর উঠতেই হাটের বহু লোক তাদের এই কাণ্ড দেখে এমন হাসি ঠাট্টা হট্টগোল শুরু করলো যে তা শুনে গাধাটা ভয় পেয়ে পা ছুঁটতে শুরু করতেই পায়ের দড়িটা গেল ছিঁড়ে। আর সঙ্গে সঙ্গে গাধাটা জলে পড়ে গিয়ে দম আটকে মারা গেল।

চাষী এতে কিছুক্ষণ হতবুদ্ধি হয়ে দাঁড়িয়ে রইলো। নিজেকে সামলে নেবার পর সে দীর্ঘ নিশ্বাস ছেড়ে বললো— যে যা বলেছে তাই শুনে আমি তাদের সন্তুষ্ট করতে গেছি, কিন্তু কাউকেই তুষ্ট করতে পারলাম না। মাঝখান থেকে আমাকে আমার গাধাট লোকসান করতে হলো।

উপদেশ ঃ সবাইকে সন্তুষ্ট করতে গেলে কাউকেই সন্তুষ্ট করা যায় না।

Leave a Comment