ঈশপের গল্প: স্বার্থপর ঘোড়া

স্বার্থপর ঘোড়া

একদা একটা ঘোড়া আর একটা গাধা নিয়ে একটি লোক রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছিল। গাধাটার পিঠে ছিল মস্ত দু’টো ভারী বোঝা। সে আর বইতে পারছিল না। সে তখন ঘোড়াকে বলল ভাই, আমি যে আর পারছি না, আমি যে মারা যেতে বসেছি। আমাকে বাঁচাতে চাও তো এ বোঝার কিছুটা মাল তুমি তোমার পিঠে নাও ।

ঘোড়া এ প্রস্তাবে রাজী হলো না।
একটু পরেই বোঝার ভার সইতে না পেরে গাধাটা পথের মাঝখানে মুখ থুবড়ে

পড়ে গিয়ে মারা গেল। লোকটি তখন গাধা যে বোঝা বইছিল তা তো ঘোড়ার পিঠে চাপালোই উপরন্তু মরা গাধার ছাল ছাড়িয়ে সেটাও ঘোড়ার পিঠে চাপালো।

এবার ভারের চোটে ঘোড়া কোকাতে কোঁকাতে করুণ সুরে বিলাপ করতে করতে বলতে লাগলো আমার দুর্মতির জন্যেই আজ এই দশা হলো। গাধার বোঝার খানিকটা আমি বইতে রাজি হইনি, তাই এখন তার পুরো বোঝা এমন কি তার চামড়া পর্যন্তও আমাকে বইতে হচ্ছে।

উপদেশ : অল্প দায়িত্বের ভার এড়িয়ে গেলে অনেক সময় বড় দায়িত্বের বোঝা

ঘাড়ে এসে পড়ে।

Leave a Comment