ঈশপের গল্প: হাঁস যখন গান গায়

ঈশপের গল্প সমগ্র থেকে হাঁস যখন গান গায় গল্পটি এবং হাঁস যখন গান গায় গল্পটির উপদেশ দেওয়া হল। যা পাঠ করলে তোমরা অনেক আনন্দ পাবে ও সেই সাথে গল্পটির উপদেশ জানতে পারবে।

হাঁস যখন গান গায়

একটি লোক কোথায় যেন শুনেছিল, হাঁসেদের গলার স্বর বড়ই মধুর, খুব ভালো গান গাইতে পারে তারা। তাই একদিন সে হাট থেকে সুন্দর একটা হাঁস কিনে নিয়ে এল বাড়িতে।

কিছুদিন পরে লোকটি কয়েকজন বন্ধুকে খাবার নিমন্ত্রণ করল বন্ধুরা খেতে বসেছে,

এমন সময় লোকটি হাঁসটিকে অতিথিদের সামনে ধরে নিয়ে এসে বলল আমার এই

অতিথি বন্ধুদের একটু ভালো করে গান শুনিয়ে দাও তো তুমি! কিন্তু লোকটি এইরকম অনুরোধ বার বার করা সত্ত্বেও হাঁসের গলা দিয়ে একটু শব্দও বেরোলো না।

এর অল্প কিছুদিনের মধ্যে হাঁসটির খুব অসুখ করল। এক সময় অসুখ বেড়ে

যাওয়ায় হাঁসটি যখন প্রায় মর মর হলো, তখন সে অতি করুণ অথচ দিব্যি মধুর কণ্ঠে

গান গাইতে শুরু করল। এই নাকি হয়। মানে হাঁসেরা যখন বোঝে তাদের মৃত্যু

ঘনিয়ে আসছে তখন তারা এমনি করেই গান গায়।

হাঁসটির মৃত্যুর সময় হাঁসটিকে এমন গান গাইতে শুনে বাড়ির মালিক বলল – মৃত্যুর সময় ছাড়া গান গাও না—এ যদি আমার আগে জানা থাকতো—তাহলে আমাকে সেদিন বন্ধুদের সামনে অপদস্থ হতে হতো না। যদি জানতাম, তাহলে সেদিন বন্ধুদের খাওয়ার সময়েই তোমায় জবাই করতাম।

উপদেশ : হাঁসের গলায় গান, যখন যায় তার প্রাণ।

হাঁস যখন গান গায় গল্পটির উপদেশ

হাঁস যখন গান গায় গল্পটির উপদেশ হল- “কোনো জীব বা জন্তুর চিরকাল কর্মক্ষমতা একই রকম থাকে না।”

ঈশপের আরোও গল্প পড়ুন

এরপর আমরা ঈশপের অন্য গল্পগুলি সম্পর্কে জানবো।

বলবান ও দুর্বল
সেয়ানে সেয়ানে
যেমন কর্ম তেমন ফল
অতি চালাকের গলায় দড়ি
এক শেয়াল ডালুকের গল্প
তিনটি ষাঁড় আর সিংহ
সিংহ ভেড়া আর নেকড়ে
এক যে ছিল কুকুর
সাপ ও বোলতা
মোরগ ও বেড়াল
গাধার গর্ব
বেঘোরে প্রাণ
খরগোশ আর কচ্ছপের গল্প
সাপ ও কৃষক
ঈশপের গল্প সমগ্র

Leave a Comment